কবিতাঃমেহগনি,নিরো,বাৎসল্য, শঙ্খ

10 / 100 SEO Score

কবিতা

Ami Mishuk | আমি মিশুক কবিতাঃমেহগনি,নিরো,বাৎসল্য, শঙ্খ

 মেহগনি

আরেকটা কলাগাছ লাগালেই ষোলোকলা পূর্ণ

তবু কলা  নয়,এসেছিল মেহগনি

মেয়ের বিয়ের জন্য বিডিয়ো অফিসের  দান ।

এরপর মেয়ে বেড়েছিল,বেড়েছিল মেহগনি

বিয়েটা হয়েছিল যথাকালে

মেহগনিও রেখেছিল কথা,বিকিয়ে বিরাট দামে ।

 নিটোল এই গল্পে সবই ছিল

শুধু ছিল না,মেয়েটির মেহগনি হয়ে ওঠার

কোনও পূর্বপ্রস্তুতি…

নিরো

নগরের মাঝে বসে বেহালা বাজাচ্ছে  নিরো

ক্ষয়া-খর্বুটে ভাইবোন চারপাশে বেড় দিয়ে

তুলছে কান্নার কোরাস

নিরোর মাঝে একটা গ্রাম,নিরোর মাঝে একটা টলটলে নদী

তবু পিছন  বড় পিচ্ছিল

কত দায় আর দায়িত্বের শ্যাওলা

তার চেয়ে এই তো ভাল:বেহালা

বেহালার সুরে ভেসে যাক পূর্বজন্মের ধানক্ষেত

মধুপর্ণী নৌকো,মাসিপিসি সর্বনাশী…

তেঁটুল-বটের কোল ঘেঁষেই রয়েছে দক্ষিণে যাবার রাস্তা।

বাৎসল্য

একজন হারিয়ে যাচ্ছে

একজন হারাবে শিগগির

নোনা সংসারে তবু টিকে থাকে বাৎসল্য-ব্যাধি…

শঙ্খ

তখন ব্যাকরণের কর্মকর্তৃবাচ্যে শঙ্খ বাজত জোর

এখন ফ্ল্যাট বাড়ি। শঙ্খ বাজলে শুধু ছোটাছুটি,দৌড়। 

Leave a Reply